আর্জেন্টিনা vs brazil পরিসংখ্যান কোপা আমেরিকা

0 ৯৩৯

ফুটবল জগতের বড় আসরগুলোর মধ্যে একটি কোপা অ্যামেরিকা কাপ বা দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্ট যা দক্ষিণ অ্যামেরিকা বা ল্যাটিন অ্যামেরিকা অঞ্চলের দল (ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে, চিলি, কলম্বিয়া, পেরু, ইকুয়েডরসহ আমেরিকা অঞ্চলের অনেক দেশ অংশগ্রহণ করে থাকে। টুর্নামেন্টটি ১৯১৬ সাল হতে ২০২১ সাল পর্যন্ত ৪৮ টি আসরের বেশিরভাগ আসরেই  ‘আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল’ অংশগ্রহণ করেছে। বিশ্বজুড়ে উত্তাপ ছড়িয়ে দেওয়া দল আর্জেন্টিনা vs brazil পরিসংখ্যান কোপা আমেরিকা বিজয়ী হিসেবে প্রথম ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে যেখানে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে উরুগুয়ে। কোপা আমেরিকা কাপের আসরের ম্যাচসমূহ পর্যালোচনায় দেখা যায় ১৯১৬ সালে যাত্রা শুরুর পর থেকে প্রায় প্রতিটি আসরেই ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার অংশগ্রহণ ছিল।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচকে ফুটবলের ইতিহাসে সবথেকে দুর্দান্ত ও বিচক্ষণ দুটি দলের প্রতিযোগিতা বলা হয়ে থাকে। দল দুটি  এযাবতকালের করা ফিফার সকল শীর্ষ দশ দলের তালিকায় ছিল। এছাড়া, ফিফার করা বিশ্বসেরা খেলোয়াড়দের তালিকার বেশিরভাগই দেশ দুটোর জাতীয় ফুটবল স্কোয়াডেই ছিল যার মধ্যে রয়েছে ডিয়াগো ম্যারাডোনা, লিয়োনেল মেসি, পেলে, জিজিনহো, রোবার্ট কার্লোস, রোনালদো, রিভাল্ডো, রোনালদিন হো, কাকা ও নেইমার।

দেশ দুটোতে ফুটবল খেলা জনপ্রিয়তা পাওয়ার পূর্ব ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার প্রতিদ্বন্দ্বিতার ইতিহাস রয়েছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা প্রতিটি ম্যাচই উত্তেজনা ছড়ায় যা দেশের সীমানা পেরিয়ে বিরাজমান থাকে বিশ্বজুড়ে। এমনকি, দল দুটোর খেলা আন্তর্জাতিক অনেক বড় বড় আসরের ফাইনাল খেলাকে হার মানায়। বিশ্বজুড়ে উত্তাপ ছড়ানো এই দল দুটি একে অপরের নিকট হার মানতে নারাজ। এমন ঘটনা ঘতেছে যে হারকে কেন্দ্র করে উত্তেজনায় দল দুটি ১৯৪৬ থেকে ১৯৫৬ সাল পর্যন্ত প্রায় দশ বছর কেউ কারো মুখোমুখি হয়নি প্রতিবেশি দেশ হয়েও।

১৯১৪ সালে প্রথম কোনো আসরে মুখোমুখি হয়ে আজ পর্যন্ত প্রায় ১১২ টি আন্তর্জাতিক প্রীতি কোনো ম্যাচ, ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ, কোপা আমেরিকা কাপ কিংবা অন্য কোনো ফুটবল আসরের কোন ম্যাচ খেলেছে। তন্মধ্যে, কোপা আমেরিকার হওয়া ৪৮ আসরের ফুটবল খেলার  ব্রাজিল আর্জেন্টিনার হেড টু হেড ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় সর্বমোট ৩৩ টি যার মধ্যে ১৫ টি ম্যাচে আর্জেন্টিনা জয়লাভ করে এবং ১০ টি ম্যাচে ব্রাজিল জয়লাভ করে। এছাড়া, ৮ টি ম্যাচ ড্র করে দল দুটি।

আর্জেন্টিনা vs brazil পরিসংখ্যান কোপা আমেরিকা

কোপা আমেরিকা কাপের প্রথম টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয় ১৯১৬ যেখানে প্রথম আসরে দল দুটি মুখোমুখি হয়ে ১-১ গোলে খেলার ফলাফল অমীমাংসিত রাখে বা ড্র করে। পরবর্তী বছর, ১৯১৭ সালে কপা আমেরিকার দ্বিতীয় আসরে আবারও দল দুটি মুখোমুখি হয়ে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমানে মাথে নামলে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার নিকট ৪-২ গোলে বড় পরাজয় বরণ করে। অবশ্য, ১৯১৯ সালের পরবর্তী আসরে ব্রাজিল আর্জেন্টিনাকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে।

১৯২০ সালে কোপা আমেরিকা কাপের চতুর্থ আসরে আবারও মুখোমুখি হলে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে ব্রাজিলের বিপক্ষে জয়লাভ করে এব ১৯২১ সালের আসরেও আর্জেন্টিনা ১-০ গোলে জয়ী হয়। তবে ১৯২২ সালের কোপা আমেরিকা কাপে ষষ্ঠ আসরে ব্রাজিল ২-০ গোলে জয়লাভ করে।

১৯২৩ সালের কোপা আমেরিকা সপ্তম আসরে ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলায় আর্জেন্টিনা ২-১ গোলে জয়লাভ করে। এদিকে, ১৯২৫ সালের আসরে দুটো ম্যাচে মুখোমুখি হলে প্রথম খেলায় আর্জেন্টিনা ৪-১ গোলে জয়লাভ করলেও পরের ম্যাচে ২-২ গোলে ড্র হয়।

১৯২৫ সাল পরবর্তী ১৯৩৭ সাল, দীর্ঘ সময় বিরতিতে দেখা দুই দলের। কোপা আমেরিকা আসরের ১৯৩৭ সালের আসরে আর্জেন্টিনা ব্রাজিলের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ খেলতে মাঠে নামলে ১-০ ও ২-০ গোলে  জয় পায়।

পরবর্তী খেলায় দল দুটো মুখোমুখি হয় ১৯৪২ সালের আসরে যেখানে ২-১ গোলে এবং ১৯৪৫ সালের আসরে ৩-১ গোলে জয়লাভ করে আর্জেন্টিনা।

অপরদিকে, ১৯৪৬ সালে কোপা আমেরিকা আসরে আবারও মুখোমুখি দল হিসেবে মাঠে নামে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা যেখানে ব্রাজিক আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ২-০ বিজয়ী হয়। এরপর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দল আবারও প্রায় দশ বছর কোনো একটি কারনে নিজেদেরকে প্রতিপক্ষ হিসেবে নিতে অপারগতা জানায়। দশ বছর পর ১৯৫৬ সালে বিশ্ব ফুটবলে ব্রাজিল ও আর্জেন্টাইন সমর্থকগোষ্ঠী তাদেরকে মাথে পায় কোপা আমেরিকা আসরের সুবাদে। প্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটি উক্ত ম্যাচে ১-০ গোলে খেলা সমাপ্ত করে যেখানে ফলাফল ব্রাজিল জয়লাভ করে।

একইভাবে ১৯৫৭ সালে আবার মুখোমুখি মাঠে নেমে দল দুটি ৩-০ গোলে খেলার ইতি টানলে এই ম্যাচেও ব্রাজিল আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয় পায়। এদিকে, ১৯৫৯ সালে কোপা আমেরিকা ১৯৫৯ (এ) ও ১৯৫৯ (ই) নামে দুটি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয় যেখানে দুটি টুর্নামেন্টেই ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা একে অপরের বিপক্ষে খেলে ফলাফল ১-১ গোলে  ড্র ও ৪-১ গোলে আর্জেন্টিনা জয়লাভ করে।

১৯৫৯ সাল পরবর্তী ১৯৬৩ সালে আবার কোপা আমেরিকা আসরে খেলতে নামে দুই দল যেখানে ৩-০ গোলে আর্জেন্টিনা জয়লাভ করে। দীর্ঘ বিরতিতে ১৯৭৫ সালে মুখোমুখি হলে দল দুট্রে.২-১ গোলে ফলাফল করলে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয়লাভ করে। একই আসরের অন্য ম্যাচেও ১-০ গোলে ব্রাজিল জয় পায়।

১৯৭৯ সালের কোপা আমেরিকা কাপ টুর্নামেন্টেও দল দুটি নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণে দুইটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পায় যেখানে প্রথম ম্যাচে ব্রাজিল ২-১ গোলে জয়ী হয় এবং পরবর্তী ম্যাচ ২-২ গোলে ড্র হয়। এদিকে, ১৯৮৩ সালের টুর্নামেন্টেও ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুবার সুযোগ পায় যেখানে প্রথম ম্যাচে ব্রাজিল ১-০ গোলে জয় পায় এবং পরের ম্যাচটি ০-০ গোলে ড্র হয়।

১৯৮৯ সালের আসরে ২-১ গোলে জয়লাভ করলেও ১৯৯১ সালের আসরে আর্জেন্টিনা ৩-২ গোলে জয়লাভ করে। এদিকে ১৯৯৩ সালের খেলায় ব্রাজিল আর্জেন্টিনা মুল খেলায় ১-১ গোলে ড্র করলে পেনাল্টিতে আর্জেন্টিনা জয়লাভ করে এবং ১৯৭৫ সালের আসরের খেলাটি ২-২ গোলে ড্র হয়।

১৯৯৯ সালে প্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটো আবার মুখোমুখি হলে ব্রাজিল ২-১ গোলে জয়লাভ করে। ২০০৪ সালের খেলাটি অবশ্য অমীমাংসিত থেকে যায় যেখানে ফলাফল ছিল ২-২। অন্যদিকে, ২০০৭ সালে কোপা আসরে দীর্ঘদিন পর জয় পায় আর্জেন্টিনা যেখানে ফলাফল ছিল ৩-০।

২০০৭ সাল হতে পরবর্তী সময়ে এই প্রতিপক্ষ কয়েক বছর কোপা আসরে নিজেদেরকে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে যাচাই করতে ব্যর্থ হয়। পরবর্তীতে, ২০১৯ সালে ফাইনাল খেলার সুবাদে মুখোমুখি হয় দল দুটো যেখানে ব্রাজিল ২-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারাতে সক্ষম হয় এবং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে।

পরবর্তী আসর ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত হলে আবারও ফাইনাল খেলতে মাঠে নামে দল দুটো যেখানে তারা নিজেদের যোগ্যতা প্রদর্শন ও ট্রফি জয়ে দুর্দান্ত খেলে এবং ১-০ গোলে খেলার পরিসমাপ্তি টানে এনং আর্জেন্টিনা জয়লাভ করত  চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.