ইউটিউব ক্লিপস-YouTube Clips

ইউটিউব ক্রিয়েটর-দের জন্য ভিডিও শেয়ারিং-এর নতুন ফিচার

0 ২৫৮

ইউটিউব ক্লিপস বা YouTube Clips-এর মাধ্যমে গুগলের ভিডিও স্ট্রিমিং সেবা ইউটিউব তাদের ক্রিয়েটর-দের জন্য ভিডিও শেয়ারিং-এর নতুন ফিচার যুক্ত করল। লাইভ স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম টুইচ এর জনপ্রিয় ফিচারটি ইউটিউব তাঁর ক্রিয়েটরদের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে ‘ইউটিউব ক্লিপ-YouTube Clip’ নামে চালু করল যার মাধ্যমে একজন তাঁর চ্যানেলে প্রকাশিত কোনো ভিডিও’র উল্লেখযোগ্য অংশ (৫-৬০ সেকেন্ড) ভিডিওর নিচে নতুন সংযুক্ত একটি বাটনে চাপ দিয়ে তা শেয়ারিং বাটনের মাধ্যমে অন্য যেকোনো সাইটে তা প্রকাশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে, তাঁর ভিডিওর ভিউ এবং বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের জন্য আয় ক্রিয়েটরের একাউন্টে জমা হবে।

পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া ‘ইউটিউব ক্লিপ’ শুধু মাত্র নির্বাচিত কিছু চ্যানেলের যুক্ত করা হয়ে যার মাধ্যমে ইউটিউব মূলত রিভিউ গ্রহণের মধ্যমে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবে এবং তা সকলের জন্য উন্মূক্ত করা হবে। এতে লাভবান হবেন ইউটিউব কন্টেন্ট ক্রিয়েটরগণ। কারন, ‘ইউটিউব ক্লিপ’ অপশনটি ব্যবহার করে চাইলে একজন ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর এখন চাইলে তার ভিডিও বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শেয়ার বা অনেক বেশি  ভিউয়ার বা দর্শকের নিকট পৌঁছে দিতে পারবেন। নতুন এই ফিচারটি উন্মূক্ত করা হলে ক্রিয়েটরগণ তা ডেক্সটপ, এন্ড্রয়েড এবং আইওএস প্লাটফর্মে ব্যবহার করতে পারবেন।

‘ইউটিউব ক্লিপ’ বিষয়টি সম্পূর্ণ টুইচ এর মত নয়, ইউটিউব ক্রিয়েটরগণ একটি নতুন ভিডিও তৈরি করতে পারছেন এই অপশনটির দ্বারা যেখানে থাকবে শুরু এবং শেষ, তবে ভিডিওটির ৬০ সেকেন্ডের বেশি দীর্ঘ হবে না। পুরো ভিডিওটি দেখার বা মুল লিঙ্কে যাওয়ার জন্য উক্ত লুপ ভিডিওতে থাকবে একটি নিল রঙয়ের  “Watch Full Video” লেখা বাটন যাতে ক্লিক করে দর্শক ইউটিউবে ক্রিয়েটর কর্তৃক আপলোড মুল ভিডিওটি সম্পূর্ণ দেখতে পারবে। এক্ষেত্রে, ব্রাউজার ট্যাব পরিবর্তন বা ইউটিউব সাইটে রিডাইরেক্ট হতে হবে না ।

বিষয়টি নিয়ে এখনও ইউটিউব পরিষ্কার কোনো ঘোষণা দেয় নি যে কিভাবে ‘ইউটিউব ক্লিপস’ কাজ করবে বা তা কতটুকু ইউটিউব এলগরিদম বা ইকোসিস্টেমের সাথে কিভাবে সমন্বয় করবে। যদি এমনটা হয় যে একজন ক্রিয়েটরের একটি ৮ বা ১০ মিনিটের ভিডিও যা ‘ইউটিউব ক্লিপস’ ব্যবহার করে ৬০ সেকেন্ডের একটি ট্রেইলরে পরিণত হয়ে তা ভাইরাল হয়ে গেল এবং মুল ভিডিওকে ছাড়িয়ে গেল… তাতে ক্রিয়েটরে উপর কোনো ধরনের প্রভাব তা চ্যানেলের উপর প্রভাব ফেলবে কিনা। যদিও ইউটিউব বলছে যে ক্লিপস এর ভিউ এবং তাতে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনের আয় চ্যানেলের ভিউ ও আয় হিসেবে গণনা করা হবে।

কিন্তু, ইউটিউব এলগরিদম বা ইকোসিস্টেম ক্রিয়েটরের ওয়াচটাইম ও অন্যান্য মেট্রিকস গণনা করে যার উপর ভিত্তি করে চ্যানেলের একটি ভিডিওকে র‍্যাঙ্ক করে থাকে। এক্ষেত্রে, এই নিয়মটি কারনে ইউটিউবারগণের আয়ের উপর প্রভাব পড়বে কিনা কারন বর্তমান গুগল এড পলিসি অনুযায়ী থার্ড পার্টি এড প্রদর্শনের ক্ষেত্রে একটি ভিডিও কমপক্ষে ৩০ সেকেন্ড দীর্ঘ হতে হবে।

ইউটিউব ক্লিপস। YouTube Clips | Create and share a clip

ইউটিউব ক্লিপস বা YouTube Clips মুলতঃ ইউটিউবার কর্তৃক প্রকাশিত একটি ভিডিওর ৫-৬০ সেকেন্ডের ছোট অংশ বা ভিডিওটিতে যাওয়ার একটি পথ বা মাধ্যম।

ইউটিউব ক্লিপ সেটিং করার নিয়ম

ইউটিউব ক্লিপস সেট করতে হলে প্রথমেই আপনাকে আপনার চ্যানেলে সাইন-ইন করতে হবে। সাইন-ইন পরবর্তী ধাপের চ্যানেলের একটি ভিডিওতে ক্লিক করে ভিডিওটি চালু করতে হবে। ভিডিও’র নিচে (ভিডিও ও তাইতেল-এর মধ্যবর্তী স্থানে) থাকা ”Clip ”-এর উপর ক্লিক করতে হবে। তবে কোন ”Clip ” প্রদর্শিত না হওয়া মানে ভিডিওটি ”Clip ”র জন্য যোগ্য নয়।

ভিডিও’র উপর এডিটেবল একটি বক্স আসবে যা টেনে সরানো বা ছোট-বড় করা যাবে। বক্স-এর দুই প্রান্তে থাকা স্লাইডার ধরে আপনি যে অংশটুকুর ক্লিপ তৈরি করতে চান তা নির্বাচন করতে হবে। এই স্লাইডারটিকে টেনে ৫ থেকে ৬০ সেকেন্ড পর্যন্ত ছোট ও বড় করা যাবে।

নির্বাচিত ক্লিপটিকে একটি সুন্দর টাইটেল দিতে হবে যা ১৪০ অক্ষরের মধ্যে হতে হবে। এই পর্যায়ে ”Share Clip” বাটনে ক্লিক করতে হবে। এখন শেয়ার করার প্লাটফর্ম বা মাধ্যম নির্বাচন করতে হবে।

  • ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে চাইলে নির্দিষ্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি) নির্বাচন করতে হবে।
  • অথবা ইমবেড (Embed) করে কোডের মাধ্যমে কোনো ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে চাইলে ইমবেড (Embed) আইকনে ক্লিক করে কোড জেনারেট করে তা নির্দিষ্ট প্লাটফর্মে পেস্ট করতে হবে।
  • ইমেল করেও উক্ত ক্লিপ শেয়ার করা যাবে যার জন্য ইমেইল আইকনে ক্লিক করে শেয়ার করতে হবে।
  • এছাড়া, লিংক কপি করেও শেয়ার করা যাবে যার জন্য ‘কপি লিংক’ বাটনে ক্লিক করে লিঙ্কটি কপি করে তা শেয়ার করতে হবে।

ইউটিউব ক্লিপ অপশন বন্ধ করার নিয়ম

ইউটিউব ক্লিপ অপশনটি মাধ্যমে একজন ক্রিয়েটর বা ইউটিউবার তার কনটেন্টকে ক্লিপ আকারে ব্যবহার করার সুযোগ দিতে পারে এবং চাইলে তা অন্য ব্যবহারকারীর জন্য সীমিতও করে রাখতে পারবেন। ইউটিউব ক্লিপ অপশন বন্ধ করার নিয়ম হলোঃ

  • ইউটিউব ক্লিপস অপশনটি অন্য ব্যবহারকারীর জন্য বন্ধ করতে চাইলে প্রথমেই চ্যানেলে সাইন-ইন করে নিতে হবে।
  • ইউটিউব চ্যনেলের ক্রিয়েটর’স ড্যাশবোর্ডে যেতে হবে।
  • ক্রিয়েটর’স ড্যাশবোর্ড হতে সেটিংস এ ক্লিক করে উক্ত অপশনে প্রবেশ করতে হবে।
  • তারপর চ্যানেল বাটনে যেতে হবে।
  • এই মুহূর্তে ‘এডভান্স সেটিংস অপশনে প্রবেশ করতে হবে।
  • ‘এডভান্স সেটিংস অপশনে থাকা ‘ক্লিপস’-এর নিচে থাকা ‘Don’t allow viewers to clip my content’ এই চেকবক্সটিকে সিলেক্ট করে দিতে হবে।

ব্যাস ইউটিউব ক্লিপ অপশনটি সকল ব্যবহারকারীর জন্য বন্ধ হয়ে গেল।

ইউটিউব ক্লিপ যেসব ভিডিও-তে প্রদর্শিত হবে না

ইউটিউব ক্লিপ অপশনটি সকল ব্যবহারকারীর জন্য উন্মূক্ত হলেও তা সকল ভিডিওর জন্য প্রযোজ্য হবে না। কোন কোন ভিডিওতে ক্লিপ অপশনটি প্রদর্শিত হবে এবং কোন কোন ভিডিওতে এই অপশনটি যুক্ত হবে না তার একটি তালিকা গুগল তাদের সাপোর্ট সাইটে প্রকাশ করেছে। ইউটিউব ক্লিপ যেসব ভিডিও-তে প্রদর্শিত হবে না তা হলোঃ

  • যেসব ভিডিও বাচ্চাদের জন্য তৈরি (ইউটিউব ফর কিডস),
  • ‘ডিভিআর’ বিহীন লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিও,
  • ৮ ঘণ্টার বেশি লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিও,
  • প্রিমিয়ার ভিডিও যতক্ষণ তা লাইভ হিসেবে চলমান থাকে।

মনে রাখতে হবে তৈরি কোনো ইউটিউব ক্লিপ আর প্রদর্শিত হবে না যদি ইউটিউব হতে মূল ভিডিওটি কোনো কারনে ডিলিট করে ফেলা হয়। এছাড়া, তৈরি লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিওর (৮ ঘণ্টার কম ও ডিভিআরসহ) জন্য তৈরি ইউটিউব ক্লিপও প্রদর্শিত হবে না যতক্ষণ লাইভ চলামান থাকবে এবং তা প্রসেসিং শেষ হয়ে আপলোড ভিডিও আকারে পাবলিশ না হবে। ইউটিউব ক্লিপ-এ বিজ্ঞাপন দেখানো হবে যেভাবে বিজ্ঞাপন নরমাল ভিডিওতে দেখানো হয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.