ই-কমার্স সুবিধা যুক্ত হচ্ছে ইউটিউবে

0 ১৬৩

বিশ্বের একনম্বর টেক জয়ান্ট গুগলের জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং ও স্টিমিং সাইট ইউটিউবে যুক্ত হচ্ছে ই-কমার্সের সুবিধা। জানা যায়, খুব শিগগিরই হয়তো আমাজন, ই-বে কিংবা আলিবাবা বা আলিএক্সপ্রেসের মত পণ্য কেনাকাটার সুবিধা পাবে ইউটিউব ব্যবহারকারীগণ।

মূলত, ইউটিউব নীতিনির্ধারকরা হয়তো ইউটিউবে ই-কমার্স অপশনযুক্ত করার মাধ্যমে ই-কমার্স প্লাটফর্মে রূপান্তরের চেষ্টা চালাচ্ছে।

তবে, আমাজন কিংবা আলিবাবা’র মত কোন প্লাটফর্ম হতে নয় পণ্য কেনা যাবে সরাসরি গুগলের ভিডিও শেয়ারিং এই সাইট ইউটিউব হতেই। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এমনটাই জানিয়েছেন কর্তাব্যক্তিরা। অন্যদিকে, ইউটিউবে পণ্য বিক্রির বিষয়ে জনপ্রিয় ই-কমার্স প্লাটফর্ম শপিফাই-এর সহিত একটি চুক্তি হচ্ছে বলেও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

এক্ষেত্রে একজন গ্রাহক এখন থেকে পণ্য সরাসরি ইউটিউব হতে কেনার সুযোগ পাবেন এবং দেখানো পণ্যে বাই নাউ বা শপ বাটন যুক্ত হবে। সম্প্রতি এবিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বিজনেস ও মার্কেট নিউজ সাইট ব্লুমবার্গ।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, সীমিত সংখ্যক ও নির্দিষ্ট কিছু দেশের নির্বাচিত চ্যানেলে নিয়ে এই পাইলট প্রকল্পটির চালু করতে চায় গুগল। এক্ষেত্রে যেসব ইউটিউব চ্যানেল আনবক্সিং বা পণ্যের রিভিউ দিয়ে ভিডিও কন্টেন্ট তৈরি করে থাকেন তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। দেখানো ভিডিওতে পণ্যের নাম ও বিস্তারিত বর্ণনা থাকতে হবে এসব ভিডিওতে। এই তালিকায় খাবার বা রেসিপি ও মেকআপ চ্যানেলগুলোকেও রাখতে চাচ্ছে ইউটিউব। তবে, নতুন এই সেবা বা সার্ভিস হতে কত শতাংশ ভিডিও কন্টেন্ট মালিকের জন্য রাখা হতে সেবিষয়ে পরিস্কার কোনো ধারনা ইউটিউব হতে এখনো আসে নি।

তবে পরিস্কার ধারনা না দিলেও গুগল যে ই-কমার্স খাতে পদার্পণ করতে যাচ্ছে তার ইংগিত পাওয়া গেছে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুন্দর পিচাই’র সাম্প্রতিক এক বক্তব্যে। নতুন এই ফিচারটি থাকবে এন্ড্রয়েড, আইওএসসহ ডেক্সটপ ভার্সনে।

উল্লেখ্য, ইউটিউবের রয়েছে প্রতি মাসে ১ বিলিয়ন নতুন ব্যবহারকারী যারা প্রায় ৬ বিলিয়ন ঘন্টার ভিডিও দেখে থাকে যা প্রতি বছর ৫০ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পায়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.