একীভূত হচ্ছে জিপি ও রবির মূল কোম্পানি

0 ১৬৫

মালয়েশিয়ায় একিভূত হচ্ছে এশিয়ার সব থেকে বড় দুই টেলিকম সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান টেলিনর ও অজিয়াটা। জানা গেছে মালয়েশিয়ায় সেবা প্রদানকারী টেলিনরের ডিজিকম বারহাদ ও অজিয়াটার সেলকম অজিয়াটা বারহাদ এক হয়ে ‘সেলকম ডিজি বারহাদ’ নামে নতুন প্রতিষ্ঠান হিসেবে আবির্ভূত হবে। উভয় কোম্পানি ২০১৯ সাল হতে একীভূত হওয়ার ঘোষণা দিয়ে আসছিল। যদিও তা কয়েকমাস চলমান থেকে ভেস্তে যায়।

টেলিনর ও অজিয়াটা গত বৃহস্পতিবার এক যোথ বিবৃতিতে জানায়, একীভূত হওয়ার মাধ্যমে মালয়শিয়ায় টেলিকম সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারা তাদের গ্রাহকদেরকে উচ্চ মাত্রার সেব দিতে সক্ষম হবে। এছাড়া, এক হওয়া এই প্রতিষ্ঠানের মালিকানার ক্ষেত্রে উভয়ের ৩৩ শতাংশ করে শেয়ার থাকবে। ফলে মালয়েশিয়ান প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নিকট হতে ৫১ শতাংশ শেয়ার কিনে নেবে নতুন এই প্রতিষ্ঠান ‘সেলকম ডিজি বারহাদ’।

বর্তমানে দ্বিতীয়  ও তৃতীয় অবস্থানে থাকা এই প্রতিষ্ঠান দুটি একীভূত হয়ে ‘সেলকম ডিজি বারহাদ’ হতে যাচ্ছে মালয়েশিয়ার শীর্ষ টেলি সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান যার গ্রাহক সংখ্যা হবে ১৯ মিলিয়ন। গ্রাহক সংখ্যায় একনম্বরে থাকা প্রতিষ্ঠান রিভাল ম্যাক্সিস বারহাদকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলবে যার বর্তমান গ্রাহক সংখ্যা ৯.৪ মিলিয়ন। নতুন আবির্ভূত গ্রাহক সংখ্যায় শীর্ষ এই কোম্পানির রাজস্বের পরিমাণ গিয়ে দাঁড়াবে বাংলাদেশি টাকায় ২৫৪৬৮ কোটি।

অপরদিকে, একীভূত পরবর্তী কর্মী ছাটাই না করে চাকরির বাজার আরও প্রশস্ত করার কথা জানায় নব নিযুক্ত ব্যবস্থাপকগণ। নতুন এই প্রতিষ্ঠানটি চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হচ্ছে অজিয়াটার দা’তো মোহাম্মদ ইজাদ্দিন ইদ্রিস, ডেপুটি চেয়রাম্যানের দায়িত্ব নিচ্ছেন টেলিনরের ইয়োর্গেন আরেন্টজ রসট্রাপ এবং সিইওর দায়িত্ব নিচ্ছেন অজিয়াটার ইদহাম নওয়ায়ি। নবনিযুক্ত এই ব্যবস্থাপনা উভয় প্রতিষ্ঠানের সম্মতিতেই হয়।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ এশিয়ার দাপিয়ে বেড়ানো এই দুই প্রতিষ্ঠানের রয়েছে প্রায় ৩০ কোটি এশিয় গ্রাহক। টেলিনর ও অজিয়াটা বাংলাদেশসহ ভারত, থাইল্যান্ড, নেপাল, মিয়ানমার, শ্রীলংকা, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও কম্বোডিয়ায় টেলি সেবা দিয়ে আসছে।

মালয়েশিয়ায় একীভূত হলে প্রতিষ্ঠান দুটি এশিয়ার অন্যান্য দেশে তাদের সেবা দেওয়া কার্যক্রম আলাদা আলাদাভাবেই পরিচালনা করবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.