ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিলেন নোবেল

0 ১৯১

সময়ের আলোচিত ও হার্টথ্রব তরুন শিল্পী ও ভারতীয় সা-রে-গা-মা-পা রিয়েলিটি শো খ্যাত একমাত্র বাংলাদেশী সঙ্গীতশিল্পী  বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষিতে সমালোচনার মুখে পড়েন। সাম্প্রতিক সময়ে তার ফেসবুক পেইজে নবেল ম্যান হ্যাকড হওয়া ও তারই পেইজ হতে জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা জেমসকে নিয়ে পোস্ট নতুন করে সমালোচকদের উসকানি দিলো। এতে ক্ষেপেছিল পুরো সংগীত দুনিয়া। সেই সমালোচনার ইস্তফা টানতে শেষ পর্যন্ত হাতছাড়া হওয়া ফেসবুক একাউন্ট পুনরুদ্ধার করতঃ সাংবাদিকসহ সকল মহলের নিকট ক্ষমা চাইলেন তিনি।

ক্ষমা চেয়ে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে করা পোস্টটি হুবহু আমাদের পাঠকদের জন্য তুলে দরা হলো।

জেমস্ ভাই। আমার তো মায়ের পেটের বড় ভাই নাই। যদি থাকতো, আমি তাঁকে আপনার মত করেই ভালোবাসতাম, শ্রদ্ধা করতাম। জেনে না জেনে, বুঝে না বুঝে, রাগ অভিমানে, অনেক অন্যায় করে ফেলেছি। গুরু!! যে ভুল আমি করেছি, সে ভুলের ক্ষমা চাওয়ার যোগ্য আমি নই। তবুও, যদি নিজের ছোট ভাই এবং আপনার সবচেয়ে বড় ভক্ত মনে করে আমাকে একটু ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখতেন, আপনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকতাম।

ফেসবুকে করা পোস্টে মাত্র ১ ঘন্টায় ৬০ হাজারেরও বেশি মানুষের রিয়েক্ট করে এবং ২০ হাজার ভক্ত বা ফলোয়ার কমেন্ট করে।

জানা যায়, হাতছাড়া হওয়া ফেসবুক পেজে করা পোস্টগুলোর জন্য ১৭ মে ২০২১ তারিখে তার বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি হয়।

এর আগে তারই একাউন্ট হতে গানের জগত থেকে পরিসমাপ্তিসহ নিজের মৃত্যুর তারিখ নিয়ে পোস্ট করা হয়। এছাড়াও, সাংবাদিকদের প্রতি ওপেন চ্যালেঞ্জ করাসহ নানা নেতিবাচক বিষয়ে পোস্ট করা হয়েছিল ঈদের দিনভর।

এদিকে, ক্ষমা চেয়ে করা পোস্টের একঘন্টা পূর্বে তিনি তার মনের দুঃখ প্রকাশ করে একটি বক্তব্য লিখেন। তিনি লিখেন, মটর সাইকেল দূর্ঘটবায় আহত হলেও কেউ তার খোঁজ খবর নেয়নি কিংবা শান্তনা দেয় নি। পোস্টটি ছিল

রোড এক্সিডেন্ট এর পর আমাকে কেউ একবার কল করে খবর নিল না। নিজের আবেগ আসলে ধরে রাখতে পারি নাই। আমি মাত্র ২৪ বছর বয়সী একজন তরুন শিল্পী। আমিও তো দেশের জন্য সুনাম কুড়িছে এনেছি। আমি না হয় ভুল করব। সেগুলি ভুল ধরে দেওয়ার দায়িত্ব তো আপনাদের। সেখানে অনেকেই আমাকে প্রতিনিয়ত হেয় করছেন। তাই আসলে রাগ সামলাতে পারিনি। আমি সকল সাংবাদিক ভাইদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে কথা দিচ্ছি পরবর্তীতে এরকম ভুল আর হবে না… সবাইকে ভালোবাসা… ঈদ মোবারক।♥️

তিন ঘন্টায় ঐ পোস্টে প্রায় ১ লক্ষ রিয়েক্ট ও ৩৩০ বার শেয়ার হয় যাতপ প্রায় ৩৫ হাজার ফলোয়ার বা ভক্তরা কমেন্ট করে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ এপ্রিল ২০২১ তারিখ এক বয়ষ্ক লোক অসতর্ক ভাবে রাস্তা পার হচ্ছিলো। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে সঙ্গিগীতশিল্পী আহত হন। তার মাথার তালুতে ১২টা, বাম পাশের ভ্রু-তে ১৮টা, মোট ৩০ টা সেলাই দিতে হয়েছে।

তারপরও তিনি আত্মতুষ্টির ঢেকুর তুলে তৃপ্ত অনুভব করেন। ফেসবুকে তিনি জানান,

তবুও মনে তৃপ্তি অনুভব করছি কারন লোকটা নিরাপদ আছে। আর আমি আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি আলহামদুলিল্লাহ্। 😊

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.