নারী উদ্যোক্তাদের করমুক্ত আয়সীমা বাড়ছে

0 ৩৬৯

দেশে নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন ও ব্যবসায় নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের বাজেটে নারী উদ্যোক্তাদের বর্তমান করমুক্ত আয়সীমা বা ব্যবসায় লেনদেন করার করমুক্ত আয়সীমা বাড়ছে। ৩ জুন ২০২১ তারিখে জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কর্তৃক উত্থাপিত বাজেটে নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষুদ্র, মাঝারিসহ সকল ব্যবসায় করমুক্ত আয় সীমা ৭০ লাখে উন্নীত করা হয়েছে। যা আগের অর্থ বছর (২০২০-২০২১)-এ ছিল ৫০ লাখ টাকা। অর্থাৎ বর্তমান অর্থবছরে কোনো নারী উদ্যোক্তা যদি তার পরিচালিত ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান হতে ৭০ লক্ষ টাকা আয় করে থাকেন তার জন্য তাকে বা তার প্রতিষ্ঠানকে কোনো ধরনের কর দিতে হবে না।

অর্থমন্ত্রী তার বক্তব্যে জানান, বর্তমানে নারীর ক্ষমতায়ণ সময়ের চাহিদা। বর্তমান বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে ব্যবসা বাণিজ্যে নারীর অংশীদারিত্ব ও নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোগে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধি করতে আমরা সুযোগ করে দিচ্ছি। সেই লক্ষ্যে বাৎসরিক টার্ণওভার মাত্র ১ বছরে ৫০ লাখ হতে বাড়িয়ে ৭০ লাখে উন্নীত করা হয়েছে।

এছাড়া, করোনাকালীন সময়ে আমদের দেশের নারীরা ঘরে বসে অনলাইনে আমাদের বাণিজ্যকে নিয়ে গেছে অনন্য এক চুড়ায়। করমুক্ত আয় সীমা বাড়ায় আমদের নারী উদ্যোক্তাদের পাশাপাশি উপকৃত হবে দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বা এসএমই খাত।

প্রসঙ্গত, ব্যক্তিশ্রেণির নারীদের করমুক্ত বার্ষিক আয় সীমা গত অর্থবছরের ন্যায় বর্তমান অর্থবছর ৯২০২১-২০২২)-এও সাড়ে তিন লাখ টাকাই থাকছে। এদিকে, ২০২০-২০২১ নারী-পুরুষ সব উদ্যোক্তার জন্য টার্নওভার করমুক্ত সীমা ছিল ৫০ লাখ টাকা। ফলে, একজন নারী উদ্যোক্তাকে একজন পুরুষ ব্যবসায়ীর সাথে প্রতিযোগিতা করতে হাঁপিয়ে উঠতে হতো।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.