ADs BB
ADs BB

‘পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি’ বা ‘আমমোক্তারনামা’ ব্যবস্থা থাকছে না

২২৮

জমি-জমা কেনাবেচার ক্ষেত্রে আইনি সক্ষমতা প্রদানের প্রক্রিয়া ‘পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি’ বা আমমোক্তারনামা প্রথা তুলে দেওয়ার চিন্তা করছে সরকার। এক্ষেত্রে পাওয়ার অফ এটর্নি ব্যবহারে যে অনিয়ম বা বা অপব্যবহারের সুযোগ রয়েছে তাকে কারণ হিসেবে দেখনো হয়েছে। তবে বিশেষ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম রাখা হচ্ছে।

সম্প্রতি ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হওয়া জেলা প্রশাসক সম্মেলনে ভূমিমন্ত্রী এই তথ্য জানান। তিনি বলেন, শুধুমাত্র দেশের বাহিরে অবস্থান করে তারা ব্যতীত দেশে অবস্থানকারী আমার জমির মালিকের ক্ষেত্রে  পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি বা আমমোক্তারনামা কার্যকর হবে না। এক্ষেত্রে, প্রবাসীদের পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি শ্রেষ্ঠ এ্যাম্বাসির মাধ্যমে সম্পন্ন করতে হবে।

এছাড়া ভূমি অধিগ্রহণ মামলা বা এলএ কেস এর ক্ষেত্রে সকল ধরনের আমমোক্তারনামা ব্যবস্থা বন্ধের বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে। তবে, বিকল্প কিছু ক্ষেত্র যেমন ‘ব্যাক রিটেন’ কিংবা ‘ভেরি স্পেশালি প্রিভিলেজড পারসন’ এর ক্ষেত্রে ডিসক্রিশনারি পাওয়ার ব্যবস্থা প্রযোজ্য থাকবে।

এছাড়া গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তির ক্ষেত্রে কিংবা জেলা প্রশাসকের নিকট আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রাপ্ত হলে বিবেচনায় নেয়া যাবে।

অপরদিকে, মন্ত্রী বলেন, আমরা অনেক ক্ষেত্রেই ডিজিটালাইজেশন ব্যবস্থা করতে সক্ষম হয়েছি। এক্ষেত্রে, ই-নামজারি শতভাগ অনলাইনে চলে গিয়েছে। অক্টোবর ২০২২ হতে আবেদন ফি ও কোর্ট ফি’র পাশাপাশি ডিসিআর ফি’ও অনলাইন পেমেন্টে নেয়া হচ্ছে। ম্যানুয়েল কোনো নামজারী বা মিউটেশন গ্রহণ করা হবে না।

বর্তমানে ভূমি উন্নয়ন কর (এলডি ট্যাক্স) আদায় মেনুয়েল সেবার পাশাপাশি অনলাইন সেবাও চালু করা হয়েছে। কিছু কিছু ভূমি অফিসে ডাটা এন্ট্রি কার্যক্রম চলমান থাকায় এলডি টেক্স আদায়ে এখনো অনলাইন সেবা চালু করা সম্ভব হয় নি। আশা করা যায় এই বছরের শেষ নাগাদ সকল ডাটা এন্ট্রি সম্পন্ন হয়ে যাবে। তখন থেকে আর ম্যানুয়েল এলডি ট্যাক্স পরিশোধ সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে (বিডিএস)

উল্লেখ্য, বর্তমানে চলমান ভূমি জরিপই হবে বাংলাদেশের সর্বশেষ সার্ভে। এটিকে বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে বা বিডিএস নামে নামকরণ করা হয়েছে। পাইলট প্রকল্প বরগুনা ও পটুয়াখালী জেলায় শুরু করা হবে। এই প্রকল্পের আওতায় ড্রোনের মধ্যমে ছবি তুলে ও স্যাটেলাইট হতে ইমেজ নিয়ে সার্ভেটি সম্পন্ন করা হবে। পাইলট প্রকল্পটি সফলভাবে সম্পন্ন করা হলে সারাদেশে এর রেপ্লিকা কার্যক্রম শুরু করা হবে।

 

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.