ADs BB
ADs BB

পারর্সোনাল রিটেইল একাউন্ট করার নিয়ম

ট্রেড লাইসেন্স ছাড়াই করা যাবে পারসোনাল রিটেইল একাউন্ট। ব্যাংক ঋণ পাওয়া যাবে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত

৫৮৩

একক ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য রয়েছে সুখবর। পারসোনাল রিটেইল একাউন্ট করা যাবে ট্রেড লাইসেন্স ছাড়াই। পাওয়া যাবে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ। থাকবেনা একাউন্ট খোলা বাবদ কোন খরচ এবং কমবে লেনদেন খরচ। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক জারি একটি নির্দেশনা যার মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও মাঝারি একক বিনিয়োগকারীরা বা উদ্যোক্তারা ট্রেড লাইসেন্স বিহীন ব্যাংক একাউন্ট খুলতে পারবেন। ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা তাদের নামে যে কোন ব্যাংক মোবাইল আর্থিক সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান ও লেনদেন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এই হিসাব খুলতে পারবেন। তবে, এক্ষেত্রে হিসাবটি হবে ব্যক্তির নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নামে নয়। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে সকল ব্যাংক সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে জানিয়ে দিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক হতে জারি করা নির্দেশনা হতে জানা যায় যে এখন হতে ব্যাংক, এমএফএস ও পিএসপিগুলো এখন থেকে ছোট উদ্যোক্তারা তাদের ব্যবসার বিপরীতে ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন। এসব হিসাব এর বিপরীতে লেনদেনের জন্য কোন অর্থ কিংবা হিসাব করার জন্য কোন খরচ দিতে হবেনা। উপরন্তু লেনদেনের উপর ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। তবে হিসাবটি এমএফএস বা মোবাইলে আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে হলে কমবে লেনদেন খরচ।

ছোট উদ্যোক্তা ব্যবসায়ীদের এ হিসাবের নাম হবে ‘পারর্সনাল রিটেইল একাউন্ট’ বা ‘ব্যক্তির টিটেইল হিসাব’। এই একাউন্টটি মূলতঃ শ্রমনির্ভর ব্যক্তিকেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠান কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কেন্দ্রিক উদ্যোক্তাদের জন্য যার মাধ্যমে তাদের পণ্য বিক্রি করে অর্থ জমা করতে পারবেন এবং স্বাভাবিক মৃত্যু লেনদেনগুলো করতে পারবেন।পারসোনাল রিটেইল একাউন্টে মাসিক লেনদেনের সীমা ১০ লাখ নির্ধারন করা হয়েছে। তবে, এমএফএস এর মাধ্যমে করা একাউন্টে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা লেনদেন করা যাবে।

পার্সোনাল রিটেইল একাউন্টে একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী তার পণ্য বা সেবা বিক্রির মূল্য গ্রহণ, পণ্য বা সেবা ক্রয়ে মূল্য পরিশোধসহ ব্যক্তিগত লেনদেন করতে পারবেন। পণ্য বা সেবার মূল্য গ্রহণের লেনদেনের উপর ভিত্তি করে ঋণের পরিমাণ ও যোগ্যতা নির্ধারণ করা হবে।

মূলত এর মাধ্যমে ডিজিটাল লেনদেন বা ক্যাশলেস পেমেন্ট পেমেন্টের বিষয়টিকে প্রাধান্য দিয়ে পার্সোনাল রিটেইল একাউন্ট ধারণাটি সামনে নিয়ে আসে বাংলাদেশ ব্যাংক।

পারর্সোনাল রিটেইল একাউন্ট খোলার নিয়ম

পারসোনাল রিটেইল একাউন্ট বা ব্যক্তিক রিটেইল হিসাব হলো ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী যেনন মুদির দোকানদার, রাস্তার পাশে খাদ্যপণ্য বিক্রেতা, ফুচকা-চটপটির দোকানদার, স্থানীয় ছোট ব্যবসায়ী, সিএনজি অটোরিক্সার ড্রাইভারসহ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও ফেসবুক বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নির্ভর ব্যবসা করে এমন উদ্যোক্তাদের জন্য যাদের আনুষ্ঠানিক বা প্রাতিষ্ঠানিক কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কিংবা ট্রেড লাইসেন্স নেই।

এসব উদ্যোক্তাদের জন্য পারসোনাল রিটেইল একাউন্ট খুলতে পেশাগত পরিচিতির জন্য লাগবে না ট্রেড লাইসেন্স। তবে, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি (ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য বা ওয়ার্ড কমিশনার)এর নিকট হতে একটি প্রত্যয়ন পত্র বা সনদ প্রয়োজন হবে যেখানে তিনি কতদিন ধরে কি ব্যবসা করেন তা উল্লেখ থাকবে। এর সাথে শুধু জাতীয় পরিচয় পত্রের কপি দিতে হবে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.