‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ আম আসবে দেড় টাকায়

0 ৩২৯

আমের শহর রাজশাহী না চাঁপাই নবাবগঞ্জ? সেটা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও সবার চায় নবাবগঞ্জ কিংবা রাজশাহীর আমই? শখ করে চাঁপাই নবাবগঞ্জ বা রাজশাহী থেকে আম কিনলেও তা ঢাকা পর্যন্ত আনতে যে পরিবহন খরচ গুণতে হয় ভক্তাকে তাকে অনেকেরই আম খাওয়ার শখ শিকায় উঠে। এ সমস্যা হতে মুক্তি দিতে বাংলাদেশ রেলওয়ে চালু করল ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’। যা চাঁপাই নবাবগঞ্জ হতে রাজশাহী হয়ে মৌসুমি ফল আম ও অন্যন্য সবজি নিয়ে ছুটবে রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে। ২৭ মে ২০২১ ভিডিও কনফারেন্স করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রেলওয়ের সেবামূলক এই সার্ভিসটির উদ্ভোধন করেন।

‘রাজশাহী অঞ্চল থেকে আম যাতে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে যেতে পারে সেজন্য ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালু করা হলো। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি’ – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রচলিত কুরিয়ার সার্ভিসগুলো পরিমাণ ও সময়ভেদে ১০-২০ টাকা/কেজি পর্যন্ত চার্জ করে থাকে। এতো শুধু ঢাকা আনা পর্যন্ত… আর যদি কেউ অন্য কোনো জেলা শহর বা মফস্বলে পৌঁছে দিতে বলে গুণতে তার দ্বিগুণ টারেন। এছাড়া, সময়ক্ষেপণ ও অবহেলাজনিত কারনে পণ্য নষ্ট ও সঠিক সময়ে প্রাপ্তি হয় না। এসব সমস্যার কারনে ভোক্তা ও মাঠ হতে ভোক্তার হাতে পৌঁছে দেওয়ায় নিয়োজিত ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের পড়তে হয় ভোগান্তিতে। ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’- সার্ভিসটি চালু হওয়ার চাঁপাই নবাবগঞ্জ ও রাজশাহী হতে ঢাকা পর্যন্ত প্রতি কেজি আম পরিবহনে খরচ হবে মাত্র ১ টাকা ৩১ পয়সা, যেখানে পার্সেল বা কুরিয়ার সার্ভিস-এ সমপরিমাণের জন্য খরচ হয় ২০ টাকা। তবে, ক্যারেট প্রতি লেবার ভাড়া দিতে হবে ১০ টাকা।

ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেনের শিডিউল বা সময়সূচী

জানা যায়, ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ ৫টি মালাবাহি বগি বা ওয়াগন যার প্রতিটির ধারণ ক্ষমতা ৪৩ মেট্রিক টন করে। যদিও পাকা-আধাপাকা আম যেন নষ্ট না হয়ে যায় সেজন্য প্রতি বগিতে ৩০ মেট্রিক টন আম তোলা হবে। সে হিসেবে ট্রেনটি প্রায় ৭ হাজার কেজি আম বা পণ্য নিয়ে আসবে ঢাকায়। ৫ ওয়াগন সম্বলিত রেলইঞ্জিনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ হতে প্রতিদিন বিকেল ৪ টায় ছেড়ে সন্ধ্যা ৫ টা ২০ মিনিটে রাজশাহী স্টেশনে পৌঁছবে এবং ৩০ মিনিট যাত্রা বিরতি নিয়ে রাজশাহী হতে ৫টা ৫০ মিনিটে ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছবে রাত ২ টায়। মালামাল নামিয়ে ঐ রাত ২টা ১৫ মিনিটে পুনরায় ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে। সকাল ৮টা ৩৫ মিনিটে রাজশাহী স্টেশনে পৌঁছে ২০ মিনিট বিরতি নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফিরে আসবে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে।

যাত্রা পথে ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জের নবাবগঞ্জ স্টেশন, আমনুরা স্টেশন,  রহনপুর স্টেশন, কাঁকন, রাজশাহী, হরিয়ান, সরদাহ, আড়ানী, আবদুলপুর হয়ে পৌঁছবে ঢাকার কমলাপুর।

রেলওয়ের লাভ-লোকসানের বিষয় নয়, এটা দেশের অর্থনীতির জন্য বড় একটা লাভ।-জিএম মিহির কান্তি গুহ।

আম পরিবহনে দেড় মাস চলবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল’ ট্রেনটি। আমসহ সবজি ও অন্যান্য মালামাল খুব দ্রুত ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলে পৌঁছে যাবে। উল্লেখ্য, গত বছর প্রথম ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেনটি প্রথমবারের চালু হলে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কৃষকদের পাশাপাশি এ অঞ্চলের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের নিকট হতে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যায়। সেবছর জুন ও জুলাই মাসে আমসহ ৮৫৭ টন পণ্য পরিবহন করে রেল কর্তৃপক্ষ ৯ লাখ ২৯ হাজার ৮৬৯ টাকা আয় করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.