সরকারি ছুটির তালিকা ২০২২

0 ৩২৯

প্রশাসনিক কার্যক্রমের সুবিধার্থে বছর শুরু হওয়ার পূর্বে মন্ত্রিসভা সরকারি ছুটির অনুমোদন করে যার উপর ভিত্তি করে সরকারি ক্যালেন্ডার বা দেশের অফিসিয়াল ক্যালেন্ডার তৈরি করা হয়ে থাকে। ২০২২ সালের সরকারি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী পাবলিক হলি ডে বা ছুটির তালিকা প্রকাশ করেছে। সরকারি ছুটির তালিকা ২০২২ মূলত বাংলা, আরবি ও ইংরেজি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী তৈরি করা হয়ে থাকে। সরকারি ছুটির মধ্যে রয়েছে সাধারন ছুটি, নির্বাহী আদেশে ছুটি, ঐচ্ছিক ছুটি।

সাধারন ছুটিগুলো হলো ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস, ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস, ১ মে মে দিবস, জুমাতুল বিদা (চাঁদ দেখা সাপেক্ষে), ঈদুল ফিতর, বুদ্ধপূর্ণিমা (বৈশাখী পূর্ণিমা), ঈদুল আজহা, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, জন্মাষ্টমী, দুর্গাপূজা (বিজয়া দশমী), ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.), ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস এবং ২৫ ডিসেম্বর যিশু খ্রিস্টের জন্মদিন বা বড়দিন।

নির্বাহী আদেশে ছুটির তালিকায় রয়েছে  শবেবরাত, ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ, শবে কদর, ঈদুল ফিতরের আগে ও পরের দিন, ঈদুল আজহার আগে ও পরের দিন এবং আশুরার দিন।

ঐচ্ছিক ছুটির তালিকায় যে দিনগুলো রয়েছে তা মূলত বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের জন্য পৃথক পৃথক ভাবে থাকে। অর্থাৎ যে যে ধর্মের অনুসারী তিনি তার ধর্মের আচার বা অনুষ্ঠানের তারিখের সাথে মিল রেখে এই ছুটিগুলো ভোগ করবেন।

মুসলিম পর্বের ঐচ্ছিক ছুটির তালিকায় রয়েছে  শবে মেরাজ, ঈদুল ফিতরের তৃতীয় দিন, ঈদুল আজহার তৃতীয় দিন, আখেরি চাহার সোম্বা এবং ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম।

হিন্দু পর্বের ঐচ্ছিক ছুটির দিনগুলোর মধ্যে রয়েছে- সরস্বতী পূজা, শিবরাত্রী ব্রত, দোলযাত্রা, হরিচাঁদ ঠাকুরের আবির্ভাব, মহালয়া, দুর্গাপূজা (নবমী), লক্ষ্মীপূজা এবং শ্যামাপূজা।

খ্রিস্টান পর্বের ঐচ্ছিক ছুটির তালিকায় রয়েছে ১ জানুয়ারি ইংরেজি নববর্ষ, ভস্ম বুধবার, (এপ্রিল মাসের প্রথম বৃহস্পতিবার) পুণ্য বৃহস্পতিবার, (এপ্রিল মাসের প্রথম শুক্রবার) পুণ্য শুক্রবার, (এপ্রিল মাসের প্রথম শনিবার) পুণ্য শনিবার, ইস্টার সানডে এবং ২৪ ও ২৬ ডিসেম্বর যিশু খ্রিস্টের জন্মোৎসব (বড়দিনের আগে ও পরের দিন)।

বৌদ্ধ পর্বের ঐচ্ছিক ছুটির তালিকায় রয়েছে- মাঘী পূর্ণিমা, ১৩ এপ্রিল চৈত্রসংক্রান্তি, আষাঢ়ি পূর্ণিমা, মধু পূর্ণিমা এবং  প্রবারণা পূর্ণিমা (আশ্বিনী পূর্ণিমা)।

এছাড়া, পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকা ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত কর্মচারীদের জন্য ঐচ্ছিক ছুটির মধ্যে রয়েছে- ১২ ও ১৫ এপ্রিল বৈসাবি ও পার্বত্য চট্টগ্রামের অন্যান্য ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীগুলোর অনুরূপ সামাজিক উৎসব।

বাংলাদেশ সরকারের নির্বাহী আদেশ অনুযায়ী প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী সর্বোচ্চ তিন দিন ঐচ্ছিক ছুটি তার ধর্মানুসারে আচার বা অনুষ্ঠানের তারিখ অনুযায়ী উপভোগ করতে পারবেন। তবে, নির্বাহী আদেশের এই ছুটি উপভোগের জন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠানকে বছরের শুরুতে দিবসগুলোকে নির্ধারিত করে তা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

২০২২ সালের সরকারি ছুটির তালিকা

২০২২ সালের কোন মাসের কত তারিখে কোন সরকারি ছুটি থাকবে তা জানতে আমদের ২০২২ সালের বর্ষপঞ্জি অনুসরণ করতে হবে। ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাস শেষ হচ্ছে শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর ২০২১) এবং ২০২২ সাল বা ১ জানুয়ারি ২০২২ হচ্ছে শনিবার। ইংরেজি বর্ষপঞ্জী অনুযায়ী এই দিনটি বন্ধ হলেও আমাদের দেশে তা পালিত হয় না।

তারিখ

দিবস সময়কাল

২১ ফেব্রুয়ারী ২০২২

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষ  ও শহীদ দিবস ১ দিন

১৭ মার্চ ২০২২

জাতীয় শিশু দিবস

১ দিন

১৮ মার্চ ২০২২

শবে বরাত

১ দিন

২৬ মার্চ ২০২২

স্বাধীনতা দিবস

১ দিন

১৪ এপ্রিল ২০২২

বাংলা নববর্ষ

১ দিন

২৮ এপ্রিল ২০২২

শবে কদর

১ দিন

১ মে ২০২২ মে দিবস

১ দিন

২-৪ মে ২০২২

ঈদুল ফিতর

৩ দিন

১৬ মে ২০২২

বৌদ্ধ পূর্ণিমা

১ দিন

৯-১১ জূলাই ২০২২ ঈদুল আজহা

৩ দিন

৯ আগষ্ট ২০২২

পবিত্র আশুরা

১ দিন

১৫ আগষ্ট ২০২২

জাতীয় শোক দিবস

১ দিন

১৯ আগষ্ট ২০২২

জন্মাষ্টমী

১ দিন

৫ অক্টোবর ২০২২

 দূর্গাপূজা (বিজয় দশমী)

১ দিন

৯ অক্টোবর ২০২২

ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (স)

১ দিন

১৬ ডিসেম্বর ২০২২

বিজয় দিবস

১ দিন

২৫ ডিসেম্বর ২০২২

বড়দিন

১ দিন

 

উপরে উল্লিখিত বাংলাদেশের সরকার কর্তৃক প্রকাশিত ছুটির তালিকা হতে দেখা যায় যে, জানুয়ারি ২০২২ মাসে কোনো ছুটি নেই এবং পরবর্তী মাস ফেব্রুয়ারিতে রয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস (২১ ফেব্রুয়ারি ২২)।

বছরের তৃতীয় মাস মার্চ-এ রয়েছে তিন দিনের সরকারি ছুটি যার প্রথমটি ১৭ মার্চ ২২ জাতীয় শিশু দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মদিন, দ্বিতীয়টি ১৮ মার্চ মুসলমানদের ধর্মীয় আচার পবিত্র শবে বরাত ২০২২ এবং তৃতীয়টি ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস।

এপ্রিল মাসে রয়েছে বাংলা নববর্ষ (১৪ এপ্রিল ২২) এবং ২৮ এপ্রিল ২০২২ মুসলমানদের ধর্মীয় আচার পবিত্র শবে কদর।

মে মাসের প্রথম দিন মে দিবস পালিত হয় তাই এই দিন একটি ছুটি রয়েছে এবং একই মাসের ২-৪ তারিখ পর্যন্ত রয়েছে মুসলমানদের বড় উৎসবের একটি ঈদুল ফিতর বা রোজার ঈদ। এছাড়া, ১৬ মে রয়েছে বোদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের উৎসব বৌদ্ধ পূর্ণিমা।

জুন ২০২২-এ কোনো ছুটি না থাকলেও জুলাই মাসে মুসলমানদের আরেকটি বড় উৎসব ঈদুল আযহা বা কোরবানির ঈদ যা জুলাই মাসের ৯-১১ তারিখ পর্যন্ত পালিত হবে।

এদিকে, আগস্ট মাসে রয়েছে ৩ দিনের সরকারি ছুটি যার প্রথমটি হলো ৯ আগস্ট ২০২২ পবিত্র আশুরা, দ্বিতীয়টি ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও ১৯ আগস্ট হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্মাষ্টমী।

একইভাবে, সেপ্টেম্বর মাসেও কোনও ছুটি নেই। তবে, ৫ অক্টোবর ২০২২ রয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বড় উৎসব বিজয় দশমী বা দুর্গাপূজা। এছাড়া, ৯ অক্টোবর ২০২২ তারিখে পালিত হবে পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবি (স)।

নভেম্বর মাসে কোনো ছুটি না থাকলেও ডিসেম্বর মাসে রয়েছে দুটি ছুটি, যার প্রথমটি ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস এবং দ্বিতীয়টি ২৫ ডিসেম্বর বড়দিন।

শেষকথা

বছর ঘুরে আবারও চলে আসলো নতুন একটি বছর। বিদায় নিল ২০২১। একই সাথে শুরু হলো নতুন একটি বছরের গণনা। বিদায়বেলায় স্বাগত জানাতে প্রস্তুত সকলে। 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.